ময়মনসিংহে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, সিটি কর্পোরেশন ও ব্রহ্মপুত্র নদ খননের দাবী

A

দেশের সদ্য প্রতিষ্ঠিত বিভাগ অষ্টম, উন্নয়ন ও আধুনিকায়নে আমরাই হবো প্রথম’ এই লক্ষ্য বাস্তবায়নের উদ্দেশ্যে নবগঠিত ময়মনসিংহ বিভাগের সার্বিক উন্নয়নে বিভিন্ন প্রস্তাবনা উপস্থাপন করেন বিভাগের বিশিষ্টজনেরা।

২ এপ্রিল শনিবার সকাল ১০টায় ময়মনসিংহ টাউন হলের অ্যাডভোকেট তারেক স্মৃতি অডিটোরিয়ামে ‘ময়মনসিংহ বিভাগ উন্নয়ন ভাবনা-২০১৬ শীর্ষক নাগরিক সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়। সংলাপে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব, জাতীয় সংসদের হুইপ, সংসদ সদস্য, বিভাগীয় কমিশনার, ডিআইজিসহ অন্যান্য জনপ্রতিনিধি এবং প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা ও সুশীল সমাজের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ অংশ নেন।

ময়মনসিংহ বিভাগের ইতিহাস ঐতিহ্য পুরুজ্জীবন ও সামাজিক সাংস্কৃতিক বন্ধনকে দৃঢ়তর করতে বেশ কিছু সুনির্দিষ্ট প্রস্তাবনা উপস্থাপিত হয়। তন্মধ্যে ত্রিশালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর স্থাপনের ইতিপূর্বে সরকারের নেয়া নীতিগত সিদ্ধান্তের বাস্তবায়ন, অবিলম্বে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন বাস্তবায়ন, শিক্ষা বোর্ড স্থাপন, ব্রহ্মপূত্র নদ খনন, জেলা সমূহে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন, ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজকে বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তর, মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন, শেরপুর ও নেত্রকেনায় মেডিকেল কলেজ স্থাপন, ময়মনসিংহ শহরের ব্রহ্মপুত্র নদের উপর আরো ৩টি ৬লেনের সেতু নির্মাণ, চক্ষু ডায়াবেটিস মা ও শিশুর বিশেষায়িত হাসপাতাল স্থাপন, এস.কে হাসপাতালকে মহিলা মেডিকেল কলেজে রূপান্তর, ৩ জেলায় ৩টি অর্থনৈতিক জোন প্রতিষ্ঠা, হালুয়াঘাট নালিতাবাড়ি ও নাকুগাঁওয়ে ইমিগ্রেশনসহ পূর্ণাঙ্গ স্থলবন্দর চালু, ৪টি জেলার মহাসড়কগুলোকে ৪ লেনে উন্নীতকরণ, হাইটেক পার্ক স্থাপন, বাহাদুরাবাদ ঘাট পর্যন্ত ডাবল ও ডুয়েল গেজ রেললাইন স্থান, ফোকলোর একাডেমী স্থাপন, নেত্রকোণা-মোহনগঞ্জ- সুনামগঞ্জ জাতীয় মহাসড়ক নির্মাণ, শম্ভুগঞ্জ থেকে হালুয়াঘাট স্থলবন্দর নকলা শেরপুর হয়ে নাকুগাঁও পর্যন্ত রেললাইন স্থাপন, খাগডহরে মুক্তিযুদ্ধের প্রথম বিজয়স্তম্ভ স্থাপন, ময়মনসিংহ শহরের পাটগুদাম মোড় চৌরাস্তায় ইন্টারসেকশনটি দ্রুত বাস্তবায়ন, ব্রহ্মপুত্রের ওপারে আন্তর্জাতিকমানের স্টেডিয়াম স্থাপন, নভোথিয়েটার স্থাপন, হিমাগার স্থাপন, পাহাড়ী এলাকাসহ বিভিন্ন পর্যটন স্পটগুলোর আধুনিকায়ন।

ময়মনসিংহ বিভাগ উন্নয়ন ভাবনা নাগরিক সংলাপে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মূখ্য সচিব আবুল কালাম আজাদ, হুইপ আতিউর রহমান আতিক এমপি, সাবেক প্রতিমন্ত্রী ডাঃ ক্যাপ্টেন (অব.) মজিবুর রহমান ফকির এমপি, আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রধান সমন্বয়ক মুহ. আব্দুল হান্নান খান, ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনার জি.এম সালেহ উদ্দিন, ময়মনসিংহ রেঞ্জের ডিআইজি চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন, ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক মুস্তাকীম বিল্লাহ ফারুকী, ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার মইনুল হক, নেত্রকোনার পুলিশ সুপার জয়দেব চৌধুরী, ময়মনসিংহ পৌর মেয়র ইকরামূল হক টিটু, এফবিসিসিআই পরিচালক আমিনুল হক শামীম, বৃহত্তর ময়মনসিংহের সাংস্কৃকি ফোরামের মহাসচিব ইঞ্জিনিয়ার রাশেদুল হাসান শেলী, অ্যাডভোকেট মহিউদ্দিন, ফয়জুর রমান ফকির, কৃষিবিদ বদিউজ্জামান বাদশা, অধ্যক্ষ ডাঃ মীর্জা হামিদুল হক, অ্যাডভোকেট এইচএম খালেকুজ্জামান, অ্যাডভোকেট বাদন কুমার গোস্বামী, এহতেশামূল আলম, সৈয়দ আতিকুর রহমান ছানা, খান এ আলম খান, মনিরুল ইসলাম লিটন প্রমূখ। সংলাপে ময়মনসিংহ বিভাগের উন্নয়ন ভাবনা শীর্ষক বিভিন্ন প্রস্তাবনা তুলে ধরেন ময়মনসিংহ জেলা নাগরিক আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার নূরুল আমিন কালাম। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন জেলা নাগরিক আন্দোলনের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল ও অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলাম চুন্নু।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *